২৫ মার্চ কি দিবস

২৫ মার্চ কি দিবস, ইতিহাস, গণহত্যা দিবস কেন পালন করা হয়

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের মানুষের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল। যার জন্য ২০১৭ সালে এই দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। অর্থাৎ প্রতি বছর ২৫ মার্চ বাংলাদেশ গণহত্যা দিবস পালন করা হয়।

পাকিস্তান বাহিনী বাংলাদেশের মানুষের স্বাধীনতার দাবি কে চিরতরে মুছে ফেলার জন্য হত্যাযজ্ঞ চালায় যার নাম দেওয়া হয়েছিল অপারেশন সার্চলাইট। অন্যদিকে ছাব্বিশে মার্চ দিনের প্রথমভাগে পাকিস্তান বাহিনীর হাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গ্রেফতার হন। কিন্তু তিনি গ্রেফতার হওয়ার আগে বাংলাদেশকে স্বাধীন ঘোষণা করে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানিয়ে যান।

২৫ মার্চ কি দিবস

বাংলাদেশে প্রতিবছর ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস পালন করা হয়ে থাকে। এই দিনে পাকিস্তান বাহিনী বাংলার মানুষের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে নিকৃষ্ট হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল। তাই এই দিনটিকে স্মরণ করার জন্য বাংলাদেশ সরকার গণহত্যা দিবস হিসেবে ২৫ মার্চ পালন করে থাকে।

২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস ইতিহাস

অনেকেই আছেন যারা 25 শে মার্চ গণহত্যা দিবসের সঠিক ইতিহাস জানেন না। ১৯৭১ সালের 25 মার্চ রাতে পাকিস্তান হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের মানুষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে নিশংস হত্যাকাণ্ড চালায়। যার ফলে ওই দিন মৃত্যুবরণ করে অসংখ্য মানুষ।

পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর মূল উদ্দেশ্য ছিল যাতে মানুষ স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে আর কোন আন্দোলন করতে না পারে। ২৬ মার্চ ১৯৭১ সালের সকালবেলা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর হাতে কারাবন্দি হন। কিন্তু তিনি কারাবন্দি হওয়ার আগে বাংলার মানুষের জন্য ঘোষণা করে যান বাংলাদেশ স্বাধীন, আপনারা সবাই স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধে অংশগ্রহণ করুন। দীর্ঘ নয় মাস বাংলার মানুষ পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে নানা কৌশলে যুদ্ধ করে। যার ফলশ্রুতিতে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ বিজয় অর্জন করে।

২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস

১৯৭১ সালের 25 শে মার্চ ঘিরে রয়েছে অনেক বেদনাদায়ক স্মৃতি। কারণ 25 শে মার্চ কাল রাত্রিতে পাকিস্তান হানাদার বাহিনী বাংলার মানুষের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। তারা নারীদের উপর নির্যাতন সহ নিরীহ মানুষকে হত্যা করে। যার জন্য ওই রাত্রিকে অপারেশন সার্চলাইট বলা হয়। তারা চেয়েছিল বাংলার মানুষের মুখ থেকে স্বাধীনতা শব্দটি মুছে ফেলার জন্য। কিন্তু তারা পারেনি কারণ বাংলার দামাল ছেলেরা ছিনিয়ে এনেছিল বাংলার স্বাধীনতা।

২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস কেন পালন করা হয়

১৯৭১ সালের 25 মার্চ গণহত্যা দিবস পালন করা হয়। ২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশে গণহত্যা দিবস পালন করা শুরু হয়। কারণ 1971 সালের 25 শে মার্চ হানাদার বাহিনী বাংলার মানুষের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে নিরীহ মানুষকে হত্যা করে। যার জন্য ওই দিনটিকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

আরও দেখুনঃ ১৭ মার্চ কি দিবস ২০২২ – ১৭ মার্চ জাতীয় শিশু দিবস কেন পালন করা হয়

২৬ মার্চ কি দিবস ২০২২, কেন পালন করা হয়, ইতিহাস ও কিছু কথা

২৫ মার্চ ১৯৭১ কালো রাত

বাংলার মানুষ যখন যার যার ঘরে গিয়ে ঘুমিয়ে ছিল। তখন পাকিস্তান হানাদার বাহিনী রাতের অন্ধকারে নিরস্ত্র নিরপরাধ ও ঘুমন্ত মানুষের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল। যেটি এ পৃথিবীর ইতিহাসে অন্যতম এক ভয়াবহ গণহত্যা। যার ফলে বাংলাদেশে প্রতি শে মার্চকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালন করে। অন্যদিকে 25 শে মার্চকে অপারেশন সার্চলাইট হিসেবে বাংলাদেশ তুলে ধরে।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কি বার ছিল

অনেকেই আছেন যারা জানতে চান ১৯৭১ সালের 25 শে মার্চ কি বার ছিল। তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট টা তুলে ধরা হয়েছে ১৯৭১ সালের 25 শে মার্চ কি বার ছিল।

১৯৭১ সালের 25 শে মার্চ বৃহস্পতিবার ছিল।

আমরা চেষ্টা করেছি আজকের এই পোস্টের সাহায্যে আপনাদের সবাইকে গণহত্যা দিবস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরার জন্য। আশাকরি এখান থেকে আপনারা অপারেশন সার্চলাইট ও কালো রাত্রি সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। তাই আপনার কাছের মানুষ ও বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন যাতে সবাই 25 শে মার্চ গণহত্যা দিবস সম্পর্কে জানতে পারে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *