News

সিলেট বন্যা পরিস্থিতি ছবি, পিকচার – দেখুন সুনামগঞ্জের বন্যার ছবি

১২২ বছরের ইতিহাসে সবচাইতে মারাত্মক ধরনের বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে সিলেট বিভাগে। যেখানে সিলেট জেলা ও সুনামগঞ্জ জেলা অনেক ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ইন্ডিয়া আসামে অতিরিক্ত বৃষ্টি হওয়ায় সেই পানি পাহাড়ি ঢলের মাধ্যমে বাংলাদেশে এসেছে। যার ফলে সিলেটে তৈরি হয়েছে ভয়াবহ বন্যা। লক্ষ লক্ষ মানুষ ঘর বন্দী হয়ে পানির সাথে বেঁচে থাকার লড়াই করছে। যেখানে বন্যা পরিস্থিতির ছবিতে দেখা যাচ্ছে গরু ছাগল থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের প্রাণী পানিতে ভেসে মারা যাচ্ছে। এ করুণ অবস্থা দেখার জন্য অনেকেই সিলেট বন্যা পরিস্থিতি ছবি গুগলে অনুসন্ধান করছে।

সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি

সিলেট বিভাগের মারাত্মক বন্যার কারণে পানিবন্দি হয়েছে প্রায় ৩০ লক্ষ মানুষ। সিলেট জেলা ও সুনামগঞ্জ জেলায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। যার ফলে মানুষ আরও মারাত্মক ভাবে বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে। ভারত থেকে আসা বন্যার পানির সাথে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশে প্রতিনিয়ত বৃষ্টির পানি।

সিলেট বিভাগের মানুষকে উদ্ধার কার্যে সাহায্য করছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহ বিভিন্ন ধরনের সংগঠনের মানুষ। বিভিন্ন সংগঠন থেকে সিলেট জেলার মানুষদের জন্য বিভিন্ন ধরনের ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে সাহায্য করা হচ্ছে। বাংলাদেশ সিলেট বিভাগে ভয়াবহ বন্যার কারণে আসন্ন উনিশে জুন থেকে শুরু হওয়া এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি আজকের খবর

সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ ও সিলেট জেলার মানুষের চলাফেরার একমাত্র উপায় হচ্ছে নৌকার মাধ্যমে যাতায়াত করা। প্রায় ত্রিশ লক্ষ মানুষ ঘর বন্দী হয়ে পানি দ্বারা বিভিন্ন ধরনের রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। যেখানে বিশুদ্ধ পানির অভাব পড়েছে। মানুষের একটু আশ্রয় নেওয়ার জায়গাও নেই যেখানে মানুষ জায়গা নিয়ে থাকতে পারে।

আগামী দুই দিনের মধ্যে বৃষ্টির পরিমাণ কমে গেলে সিলেটের বন্যার পানি কমতে শুরু করবে।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ দেওয়া থেকে শুরু করে উদ্ধারকাজে সাহায্য করছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

বন্যার পানি কমে গেলে বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র গুলো পুনরায় চালু করা হবে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের বিভিন্নভাবে সাহায্য করার জন্য বাংলাদেশ সরকার কাজ করছে।

সিলেটের বন্যা ছবি

বাংলাদেশের এই বন্যা পরিস্থিতি ভারতসহ বিভিন্ন দেশে নজর কেড়েছে। যেখানে বাংলাদেশের সিলেট বিভাগের ভয়াবহতার বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। ভারত থেকে আসা অতিরিক্ত পানি বন্যার মূল কারণ। অন্যদিকে বাংলাদেশের বিভিন্ন নদী নালা ভরাট করার কারণে পানিগুলো বের হতে পারছে না। যার ফলে সিলেটের বন্যার কারণ হিসেবে প্রথমে ভারত ও দ্বিতীয় ভাবে দেশের বিভিন্ন নদী-নালা ভরাট করা কে দায়ী করা হচ্ছে। তাই আজকের এই পোস্টটি আপনাদের জন্য সিলেটের ভয়াবহ বন্যা ছবি উল্লেখ করা হয়েছে।

সিলেট বন্যা পরিস্থিতি ছবি

সিলেটের বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহতা ছবি পুরো বিশ্বে মানুষের মনে দাগ কেটেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে মানুষ কিভাবে পানির সাথে কষ্টে জীবন যাপন করছে। সিলেটে বন্যা দুর্গতদের মাঝে দেখা দিয়েছে শুকনো খাবারের অভাব। পানিতে ভেসে যাচ্ছে গরু ছাগল থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণীর প্রাণী। অন্যদিকে বেসরকারিভাবে খবর পাওয়া পর্যন্ত ২৪ জন মানুষ সিলেট বন্যায় বিভিন্নভাবে মারা গিয়েছে।

সিলেট বন্যা পরিস্থিতি পিকচার

বর্তমানে সিলেট এবং সুনামগঞ্জ জেলার বন্যা পরিস্থিতির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন নিউজ পেপারে ভাইরাল হয়েছে। যার ফলে বিভিন্ন ভাবে মানুষ সিলেট এবং সুনামগঞ্জের ছবি পোস্ট করে সহানুভূতি দেখানোর চেষ্টা করছে। অনেকে সুনামগঞ্জের বন্যার ছবি শেয়ার করে সবাইকে সাহায্য করার কথা বলছে।

সুনামগঞ্জের বন্যার ছবি ডাউনলোড

সুনামগঞ্জ জেলার বন্যার পরিস্থিতি সবচাইতে বেশি খারাপ। পরবর্তীতে সিলেট জেলার বিভিন্ন জায়গায় বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। সবচাইতে মর্মান্তিক সুনামগঞ্জ জেলার বন্যার ছবি গুলো নিচে দেয়া হয়েছে। যেগুলো আপনারা খুব সহজেই সংগ্রহ করে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করতে পারেন। তা আপনাদের যাদের সামর্থ্য আছে তারা অবশ্যই সিলেট এবং সুনামগঞ্জের বন্যার্তদের মাঝে বিভিন্ন ধরনের ত্রাণ সামগ্রী দিবেন।

বন্যার্তদের মর্মান্তিক ছবি উল্লেখ করা হয়েছে আমাদের এই পোস্টে। সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতির ছবি ডাউনলোড করে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করতে পারেন। যার যতটুকু সামর্থ্য আছে সবাই দান ও ত্রাণ সামগ্রী শেয়ার করার মাধ্যমে সিলেট বিভাগের সকল মানুষকে সাহায্য করুন। আর বেশি বেশি দোয়া করেন তারা যেন অতি দ্রুত এই বন্যা পরিস্থিতি থেকে ফিরে আবার নতুন জীবন শুরু করতে পারে।

Tech Tips

টিপস নেট বিডি সকল ধরনের প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে কাজ করে। বিভিন্ন ধরনের শিক্ষামূলক, কৃষি, প্রযুক্তি, বিনোদনমূলক, কুইজ প্রতিযোগিতা, পরীক্ষার রেজাল্ট। সকল ধরনের তথ্য দিয়ে আমরা সাহায্য করে থাকি। নতুন তথ্য পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button