টিপসশিক্ষাস্বাস্থ্য

পেস্তা বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা

আজকে আমরা কথা বলবো পেস্তা বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে। বাঙালি পেস্তা বাদাম প্রিয় মানুষ। তাই বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষ পেস্তা বাদাম খেতে ভালোবাসে। তাই অনেকে ইন্টারনেটে পেস্তা বাদামের উপকারিতা ও পেস্তা বাদাম খাওয়ার সঠিক সময় জানতে চেয়ে অনুসন্ধান করে।

আজকের এই পোস্টে আমরা শিশুদের পেস্তা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা উল্লেখ করেছি। তাই আজকের এই পোস্ট থেকে পেস্তা বাদামের উপকারিতা জেনে নিন। আরও জানতে পারবেন কখন পেস্তা বাদাম খেতে হয়।

পেস্তা বাদামের উপকারিতা

পেস্তা বাদামে মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ভিটামিন। তাই এটা আমাদের শরীর গঠনে ভূমিকা রাখে। তাই আমাদের মাঝে অনেকেই আছে যারা সব সময় পেস্তা বাদাম খেতে ভালোবাসে। তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট এ পেস্তা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা তুলে ধরা হয়েছে।

  • প্রোটিনের অন্যতম উৎস হচ্ছে পেস্তাবাদাম। ইহা খাদ্যনালীতে উপকারি ব্যাকটেরিয়া তৈরি করে ফলে পেট পরিষ্কার হয় এবং হজম শক্তি বৃদ্ধি করে।
  • দাঁত ও লিভারের কয়েক ধরনের সমস্যা দূর করে থাকে পেস্তাবাদাম।
  • পেস্তাবাদামে রয়েছে, লুটেন নামক এক ধরনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা মানুষের শরীরে বয়সের কারণে চোখের সমস্যা, বিশেষ করে চোখের ছানি পড়া রোগের সমস্যা দূর করতে বিশেষ ভূমিকা রাখে।
  • নিয়মিত নিয়ম মেনে পেস্তা খেলে অনেক ধরনের রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
  • নিয়মিত পরিমাণমত পেস্তা খেলে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর হবে।
  • পেস্তাবাদামে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ফাইটোস্টেরল। এতে উপস্থিত ফাইবার খুব সহজে দেহের কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে থাকে।
  • ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য পেস্তাবাদামের তেল বিশেষ উপকারি।
  • এতে থাকা মনো-আনস্যাচুরেটেড ফ্যাট কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে, ফলে আপনি হৃদরোগের ঝুঁকি থেকে অনেকটাই মুক্ত থাকতে পারবেন।

পেস্তা বাদামের পুষ্টিগুণ

বৈজ্ঞানিক নাম Pistacia vera, এবং ইংরেজি নাম Pistachio। পেস্তাবাদামের গাছ ছোট এবং পর্নমোচী। এই বাদামের রং সুস্বাদু, মনোরম হাল্কা গন্ধ এবং অধিক জনপ্রিয়। IFRAME SYNC অন্যান্য বাদামের তুলনায় এটি বেশ দামী। প্রতি ১০০ গ্রাম পুষ্টিমানে কাজুবাদামে পুষ্টি উপাদান হিসেবে রয়েছে-

পড়ুন : চীনাবাদামের স্বাস্থ্য উপকারিতা ও অপকারিতা

শর্করা, ২৭.৫১ গ্রাম, চিনি ৭.৬৬ গ্রাম, ফাইবার ১০.৩ গ্রাম, স্নেহ পদার্থ ৪৫.৩৯ গ্রাম, প্রোটিন ২০.২৭ গ্রাম, লুটিন জিজানথেন ১২০৫ মাইক্রোগ্রাম, থায়ামিন বি১ ০.৮৭ মিঃগ্রাঃ, রিবোফ্লাভিন বি২ ০.১৬০ মিঃগ্রাঃ, ন্যায়েসেন বি৪ ১.৩০০ মিঃগ্রাঃ, ভিটামিন বি৬ ১.৭০০ মিঃগ্রাঃ, ফোলেট বি৯ ৫১ মাইক্রোগ্রাম, ভিটামিন সি ৫.৬ মিঃগ্রাঃ, ভিটামিন ই ২.৩০ মিঃগ্রাঃ। এছাড়াও আছে, ক্যালসিয়াম ১০৫ মিঃগ্রাঃ, লোহা ৩.৯২ মিঃগ্রাঃ, ম্যাগনেসিয়াম ১২১ মিঃগ্রাঃ, ফসফরাস ৪৯০ মিঃগ্রাঃ, পটাসিয়াম ১০২৫ মিঃগ্রাঃ, দস্তা ২.২০ মিঃগ্রাঃ।

অত্যন্ত সুস্বাদু ও ভিন্ন রঙের হওয়ায় খাবার পরিবেশনায় সাজিয়ে দিতে প্রচুর পরিমাণে ব্যবহার হয়ে থাকে এই পেস্তাবাদাম।

পেস্তা বাদাম খাওয়ার নিয়ম

পেস্তা বাদাম খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে এই নিয়মগুলো অনুসরণ করে আপনি যদি পেস্তা বাদাম খান তাহলে অবশ্যই আপনি ভাল ফলাফল পাবেন। চলুন জেনে নেই কিভাবে আপনি পেস্তা বাদাম কখন খাবেন।

১, পেস্তাবাদাম আপনি সকালে খেতে পারেন ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে, সকালে খালি পেটে পেস্তা বাদাম খেলে শরীরে পুষ্টিগুণ তাড়াতাড়ি বৃদ্ধি পায় হজম শক্তি বৃদ্ধি পায় দৈনিক ছয় থেকে ষাট পেস্তাবাদাম খেলেই হবে।

২, রাতে পেস্তা বাদাম ভিজিয়ে রাখুন সকালে উঠে ভেজানো বাদামগুলো খেয়ে ফেলুন। ভেজানো পেস্তাবাদাম শরীরের জন্য খুবই উপকারী কারণ এগুলো খুব দ্রুত হজম হয়ে যায়।

৩, অনেকেই রয়েছে যারা বাদাম ভিজিয়ে লবণ দিয়ে প্রক্রিয়াজাত করে তারপর এগুলো খান। এটা মোটেও ঠিক নয় কারণ এতে বাদামে থাকা পুষ্টি উপাদানগুলো গুনাগুন গুলো নষ্ট হয়ে যায়।

৪, বাদাম খাওয়ার সময় অবশ্যই উপরের খোসা ছড়িয়ে নেবেন কাঁচা খাওয়ার অভ্যাস করুন কারণ বাদাম ভিজিয়ে খেলে বা সিদ্ধ করে খেলে বাদামের কিছু গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়। কাচা বাদাম খেতে অসুবিধা হলে বাদামের সাথে মধু দুধ ইত্যাদি জাতীয় কিছু মিশিয়ে নিতে পারেন এতে বাদামের গুনাগুন যেমন থাকবে তেমনি বাদাম খেতে স্বাদ হবে।

পেস্তা বাদামের অপকারিতা

  • যাদের এলার্জির সমস্যা আছে, তাদের এই বাদাম খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে, কারণ পেস্তাবাদাম এলার্জির সমস্যা তৈরি করে।
  • পরিমাণের তুলনায় বেশি খেলে আপনার রক্তচাপ বাড়িয়ে দেবে।
  • যারা কিডনী সমস্যায় ভূগছেন, তাঁরা পেস্তাবাদাম পরিহার করুন। অতিরিক্ত গ্রহণে আপনার কিডনীতে পাথর সৃষ্টি করতে পারে।
  • মজা পেয়ে নিয়মের বাইরে খুব বেশি বেশি খেতে থাকলে আপনার ওজন বেড়ে যাবে নিশ্চিত।

সর্বশেষ কথা

আশা করি আজকের পোস্ট এর সাহায্যে সবাই পেস্তা বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। আপনাদের যদি পেস্তা বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা পোস্ট ভালো লেগে থাকে। তাহলে অবশ্যই সবার সাথে শেয়ার করবেন। যাতে সবাই পেস্তা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানতে পারে। সাথে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

আরও দেখুনঃ 

কাজু বাদামের উপকারিতা – দেখুন বিস্তারিত

চিনা বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা

কাঠবাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা

কিসমিস এর উপকারিতা ও অপকারিতা

কলার উপকারিতা ও অপকারিতা – দেখুন বিস্তারিত

নাজনীন নিশাত

হাই আমি নাজনীন নিশাত। আমি একজন বাংলা আর্টিকেল রাইটার। আমার ব্লগিং করতে ভালো লাগে। তাই আমি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখালেখি করি। তার মধ্যে বিনোদন, শিক্ষা, ইন্টারনেট অফার, প্রযুক্তি‌ এসব বিষয় নিয়ে লিখতে ভালো লাগে। এবং আমি সবসময় চেষ্টা করি ভালো কিছু লেখার জন্য। যাতে সবাই তা থেকে উপকৃত হতে পারে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button