awami league annivarsary

৭৩ তম আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নিয়ে স্ট্যাটাস, স্লোগান ও কিছু কথা

আজ ৭৩ তম আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, ১৯৪৯ সালের ২৩ ও ২৪ জন হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর অনুসারী মুসলিম লীগের প্রগতিশীল কর্মীদের নিয়ে ঢাকার কে এম দাস এর লোনের রোজ গার্ডেনে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ’ নামে এ দলটির যাত্রা শুরু হয়। তাদের যাত্রা শুরুর দিন পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ পাকিস্তানের প্রথম বিরোধী দলের আত্মপ্রকাশ ঘটে।

যেখানে মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর সভাপতি ও শামসুল হক সাধারণ সম্পাদক এবং জেলে থাকা অবস্থায় যুগ্ন সম্পাদক নির্বাচিত হন শেখ মুজিবুর রহমান। পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ দলটির প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশে ধর্মনিরপেক্ষ অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির বাঙালি জাতীয়তাবাদ গণতান্ত্রিক সংস্কৃতির প্রগতিশীল সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থায় বিনির্মাণে রাজনৈতিক অর্থনৈতিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক দর্শনের ভিত্তি রচনা করে।

১৯৫৫ সালের কাউন্সিলে অসম্প্রদায়িক নীতি গ্রহণের প্রয়োজনে সংগঠন টির নাম পরিবর্তন করে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী লীগ রাখা হয়। অন্যদিকে পূর্ব পাকিস্তান শব্দটি বাদ পড়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় নতুন নামকরণ করে রাখা হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। ১৯৭০ সাল থেকে দলটির নির্বাচনী প্রতীক হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে নৌকা।

১৯৯৬ সালের নির্বাচনে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জয়ী হয়ে ২৩ জন দলটি ক্ষমতায় ফিরে আসে। অন্যদিকে ২০০১ ও ২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারির পর আরেক দফা বিপর্যয় কাটিয়ে ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নির্বাচনের তিন-চতুর্থাংশ আসনে বিজয়ী হয়ে আবারো রাষ্ট্রপরিচালনার দায়িত্ব পান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

৭৩ তম আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নিয়ে স্ট্যাটাস

বাংলাদেশের আনাচে কানাচে বিভিন্ন জায়গায় আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সদস্য রয়েছেন যারা প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে স্ট্যাটাস শেয়ার করতে চান। তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট এ আওয়ামী লীগ সরকার সহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিভিন্ন কালজয়ী স্লোগান উল্লেখ করা হয়েছে আজকের এই পোস্টে। নিচে থেকে আওয়ামী লীগ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের স্ট্যাটাস সংগ্রহ করে নিন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ছবি

আওয়ামী লীগ শুধু রাজনৈতিক দল নয় এটি একটি অনুভূতি

– সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম

আওয়ামী লীগ কোন রাজনৈতিক দল ভাঙ্গা-গড়ায় বিশ্বাসী নয়। আওয়ামী লীগের অতীত ইতিহাস কখনো একে সমর্থন করে না।

– মাহবুব উল আলম হানিফ

আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে দেশের উন্নয়ন করে।

– প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আমরা যখন মরতে শিখেছি, তখন কেউ আমাদের দাবাতে পারবে না।

এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম!

মানুষকে ভালোবাসলে মানুষও ভালোবাসে। যদি সামান্য ত্যাগ স্বীকার করেন, তবে জনসাধারণ আপনার জন্য জীবন দিতেও পারে।

আমার সবচেয়ে বড় শক্তি আমার দেশের মানুষকে ভালবাসি, সবচেয়ে বড় দূর্বলতা আমি তাদেরকে খুব বেশী ভালবাসি।

প্রধানমন্ত্রী হবার কোন ইচ্ছা আমার নেই। প্রধানমন্ত্রী আসে এবং যায়। কিন্তু, যে ভালোবাসা ও সম্মান দেশবাসী আমাকে দিয়েছেন, তা আমি সারাজীবন মনে রাখবো।

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নিয়ে স্লোগান

আজকে বাংলাদেশে পালিত হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। তাই সবার জন্য আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন স্লোগান নিচে দেয়া হয়েছে। যে স্লোগানগুলো ব্যবহার করে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মিছিল ও সমাবেশ করতে পারবেন।

সবাই স্লোগান ধরেন শুভ শুভ দিন, আওয়ামী লীগের জন্মদিন, জয় বাংলা।

shekh mujib ukti

mujib best sms

mujib best ukti

awami league annivarsary

awami league picture

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নিয়ে কিছু কথা

আমরা ইতিমধ্যে আমাদের পোস্টে উল্লেখ করেছে আওয়ামী লীগের দলের গঠন থেকে শুরু করে তাদের বিভিন্ন কার্যক্রমের তথ্য। তাছাড়া আমি লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নিয়ে কিছু কথা পেতে চান তারা নিচের অংশ খেয়াল করুন।

মহান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী দল আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, শামসুল হক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবসহ আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠাতাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি। ১৯৪৯ সনের ২৩ জুন সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে আওয়ামী লীগের জন্ম হয়। আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতারা দলের আত্মপ্রকাশের দিন হিসেবে ইতিহাস থেকে ২৩ জুন তারিখটি বেছে নিয়েছিলেন। কারণ ১৭৫৭ সনের ২৩ জুন পলাশীর আম্রকাননে বাংলার স্বাধীনতার লাল সূর্য অস্তমিত হয়েছিল।

পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পর বঙ্গবন্ধু হৃদয় দিয়ে উপলব্ধি করেন, ‘এই পাকিস্তান বাঙালিদের জন্য হয় নাই। একদিন বাংলার ভাগ্যনিয়ন্তা বাঙালিদেরই হতে হবে।’ গণবিচ্ছিন্ন নেতৃত্বের স্থলে জনসম্পৃক্ত নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যে ’৪৭-এর শেষে বঙ্গবন্ধু সতীর্থ-সহযোদ্ধাদের নিয়ে ১৫০ নম্বর মোগলটুলিতে ‘ওয়ার্কার্স ক্যাম্প’ সংগঠিত করেন ও ’৪৮-এর ৪ জানুয়ারি ‘ছাত্রলীগ’ প্রতিষ্ঠা করেন। একই বছরের ১১ মার্চ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের উদ্যোগে অন্যতম রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে সফল ধর্মঘটের মাধ্যমে সূচিত হয় রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের।

সবাইকে শেয়ার করে জানিয়ে দিন আজকে আমি লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। আরো নতুন নতুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী নিয়ে ক্যাপশন পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *