উক্তিকবিতাস্ট্যাটাস

সুদ নিয়ে ইসলামিক বাণী, ঘুষ নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, কিছু কথা ও কবিতা

অনেকেই সুদ ঘুষ সম্পর্কে উক্তি খোঁজ করে থাকে। আপনারা যারা সুদখোর সম্পর্কে উক্তি খোঁজ করছেন। তারা এই পোস্ট দেখে সংগ্রহ করে নিন। সুদ ঘুষ নিয়ে বাছাই করা কিছু উক্তি তুলে ধরেছি আশা করি আপনাদের কাছে ভালো লাগবে। সুদ ঘুষ সম্পর্কিত নিচে দেয়া হয়েছে সংগ্রহ করে নিন।

ঘুষ নেয়া অন্যায়। কিন্তু যারা ঘুষ খায় সুদ খায় তারা মনে করে ঘুষ নেয়া অন্য আয়। যারা দুর্নীতি করে তারা কখনোই বুঝতে পারবে না গরিবের কষ্ট। দুর্নীতিতে যারা জড়িত তারা গরীবদেরকে ঠকানোর আগে একটু ভাববে না । কাকে ঠকালো বা স্বার্থপরতা হল সে বিষয়ে তাদের কোন খেয়াল দেয়ার দরকার নেই। সুদ ঘুষ নাম ছোট হলেও এ অনেক ভয়াবহ খারাপ কাজ।

ঘুষ নিয়ে উক্তি

আপনারা যারা ঘুষ নিয়ে উক্তি খোঁজ করছেন। তারা আজকের এই পোস্ট থেকে সংগ্রহ করে নিন। আমরা এই পোস্টে ঘুষ নিয়ে কিছু বাছাই করা উক্তি তুলে ধরেছি। আশা করি আজকের এই পোস্ট আপনাদের কাছে ভালো লাগবে।

পুলিশের কনস্টেবলের চাকরির ভাগাভাগিতে টাকার বিনিময়ে অংশ নেওয়া নেতা আওয়ামী লীগে প্রয়োজন নেই। প্রাইমারি স্কুলের নৈশপ্রহরীর চাকরির জন্য টাকা নেওয়া নেতা শেখ হাসিনার দরকার নেই।
– ওবায়দুল কাদের

দুর্নীতি, আজ আমাদের সমাজের একটা সর্বশ্রেষ্ঠ সর্বনাশ। – ওলুসেগুন অবসানজো”

সেরা জিনিসগুলির দুর্নীতি সবচেয়ে খারাপটিকে জন্ম দেয়। – ডেভিড হিউম”

দুর্নীতি ঘুষ নয়, ঘুষই দুর্নীতি। – অলিক আইস

দুর্নীতি মানুষের উত্তরাধিকার। – অ্যানাকলেটাস”

ঘুষ নিয়ে উক্তি

দুর্নীতি গাছের শাখা প্রশাখার মতাে, খুব সহজেই বিস্তার ঘটে।—বেঞ্জামিন ডিজরেইলী”

সুদ ঘুষ নিয়ে উক্তি

অনেকেই উক্তির মাধ্যমে সুদ ঘুষ নিয়ে জানতে চায় বা সংগ্রহ করতে চায়। তাই আজকের এই পোস্ট থেকে আপনারা খুব সহজেই সুদ ঘুষ নিয়ে উক্তি গুলো সংগ্রহ করতে পারবেন। এবং আপনি চাইলে আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে পারবেন।

ঘুষ ছোট হলেও বড় ধরনের দোষ। – এডওয়ার্ড কোক

দুর্নীতি ঘুষ নয়, ঘুষই দুর্নীতি। – অলিক আইস

ঘুষ ছোট হলেও বড় ধরনের দোষ। – এডওয়ার্ড কোক

কজন রাজাকে অস্ত্রের জোরে পরাস্ত করা ঘুষের চেয়ে কম লজ্জাজনক । – স্যালুস্ট

সততা দরজায় দাঁড়িয়ে ধাক্কা দেয় এবং ঘুষ প্রবেশ করে। – বার্নাবে রিচ

সুদ ঘুষ নিয়ে উক্তি

যে ব্যক্তি একাধিকবার ঘুষ আদান-প্রদানের অপরাধে লিপ্ত হয়েছে বলে প্রমাণিত হয়, তাকে আগের চেয়ে অধিক কঠোর শাস্তি প্রদান করা ওয়াজিব। – সংগৃহীত

সুদ ঘুষ নিয়ে ইসলামিক বানী

হালাল পথে রোজগার করাই ইবাদত। ইসলাম পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা ইসলামে সুদ ঘুষ হারাম। আল্লাহ তাআলা অবৈধ পন্থায় উপার্জন করতে নিষেধ করেছেন। কেননা ঘুষ বা উৎকোচ গ্রহণ করা সুদ, চুরি-ডাকাতি, জিনা-ব্যভিচারের মতো হারাম ও অবৈধ কাজ। যার চূড়ান্ত পরিণাম জাহান্নামের কঠিন শাস্তি। আপনারা যারা সুদ ঘুষ নিয়ে ইসলামিক বাণী খোঁজ করছেন তারা এই পোস্টে পেয়ে যাবেন।

আল্লাহর দ্বীনে কোনো সুদ নেই। – হযরত ওমর (রাঃ)

যে বেশী সুদ খাবে, পরিণামে তার সম্পদ কমে যাবে। – ইবনে মাজাহঃ ২২৭৯

ঘুষদাতা ও গ্রহীতা উভয়ের ওপর আল্লাহর লানত বর্ষিত হয়। – রাসূল (সাঃ)

সুদের দ্বারা সম্পদ যতই বেড়ে যাক না কেন তার শেষ পরিণতি হলো নিঃস্বতা।- আব্দুল্লাহ বিন মাসঊদ (রাঃ)

যে ব্যক্তি প্রশাসনিক ক্ষেত্রে ঘুষ গ্রহণ করবে, তার ও বেহেশতের মাঝে সেই ঘুষ বাধা হয়ে দাঁড়াবে। – আবদুর রহমান বিন আওফ (রাঃ)

যে সুদ তোমরা মানুষের সম্পদের সাথে মিশে বাড়ানোর জন্য দাও তা আল্লাহর কাছে বাড়ে না। – সূরা রুমঃ ৩৯

হে ঈমানদারগণ! চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ খাওয়া বন্ধ করো এবং আল্লাহকে ভয় করো তাহলেই তোমরা সফলকাম হবে। – আল ইমরানঃ ১৩০

হে মুমিনগণ! তোমরা আল্লাহকে ভয় করো ও সুদের যা বকেয়া আছে তা বর্জন করো যদি তোমরা সত্য মুমিন হয়ে থাকো । – সূরা বাকারাঃ২৭৮

রাসূল (সাঃ) সাতটি ধ্বংসকারী জিনিস থেকে বিরত থাকতে বলেছেন। তন্মধ্যে একটা হলো সুদ খাওয়া। – মুসলিম, কিতাবুল ঈমানঃ১৭০

বুঝেশুনে এক দিরহাম পরিমাণ সুদ খাওয়া আল্লাহর নিকট ছত্রিশবার ব্যভিচারের চেয়েও অধিক গুনাহের কাজ। – মুসনাদে আহমদঃ ১০৩৩

সোনার বিনিময়ে সোনা, রুপার বিনিময়ে রুপা, জবের বিনিময়ে জব, আটার বিনিময়ে আটা, খেজুরের বিনিময়ে খেজুর এমনিইভাবে সমজাতীয় দ্রব্যের নগদ আদান-প্রদানে অতিরিক্ত কিছু হলেই তা সুদের পর্যায়ে যাবে। – মুসলিম

যে ব্যক্তি সুদ খায়, সুদ দেয়, সুদের সাক্ষী থাকে এবং যে ব্যক্তি সুদের হিসাব-নিকাশ বা সুদের চুক্তিপত্র ইত্যাদি লিখে দেয় সবাইকে রাসুলুল্লাহ (সাঃ) লানত করেছেন। – তিরমিজিঃ ১২০৬

যে ব্যক্তি নিজের মুসলিম ভাইয়ের জন্য সুপারিশ করার বিনিময়ে উপহার দিতে চায় এবং সেই উপহার গ্রহণ করে। তবে সে সুদের এক বড় দ্বারপ্রান্তে পদাপর্ণ করবে। – মুসনাদে ইমাম আহমদ ও সুনানে আবু দাউদ

সুদ ঘুষ নিয়ে কিছু কথা

সুদ বা ঘুষ নেয়া খারাপ কাজ। যারা অবৈধভাবে রোজগার করে সে কাজে কোন মূল্য। অনৈতিক কাজ কর্ম দেশ ও জাতির জন্য ক্ষতিকর। সুদ ঘুষ একটি খারাপ কাজ যারা ঘুষ নেয় তারা অন্যায়ের সাথে জড়িত হয় ও নানান ধরনের পাপ কাজ করে ফেলে। সমাজ সু-শৃংখল ও ভালো রাখার জন্য অবশ্যই সুদ ঘুষ নেয়া থেকে বিরত থাকতে হবে তাহলে একটি সমাজ সুন্দর হয়ে উঠবে।

ঘুষ নিয়ে স্ট্যাটাস

আপনি আপনার ফেসবুকে যদি ঘুষ নিয়ে স্ট্যাটাস দিতে চান। ঘুষ সম্পর্কে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার মাধ্যমে অন্যদেরকে জানাতে চান। তাহলে আজকের এই পোস্ট থেকে সংগ্রহ করে নিন। আমরা এই পোস্টে ঘুষ নিয়ে কিছু বাছাই করা স্ট্যাটাস তুলে ধরেছি।

সৎ লোকেদের ঘুষ দিতে পারবেন না, কিন্তু খারাপ লোকেরা ঘুষ গ্রহণ করবে । – অ্যান দ্বীপ

ঘুষ না দেওয়া সহজ কিন্তু একই সময়ে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া এতো সহজ নয়। – ওয়াং শি

কাগজে-কলমে আইন একটি সূক্ষ্ম জিনিস, কিন্তু বেদনাদায়ক যখন কোনো ঘুষ তাদের বাঁধন কমাতে পারে না। – পাওলো বেসিগালুপি

আল্লাহ সুদকে বিলুপ্ত করেন এবং দান সদাকাকে বাড়িয়ে দেন। – তাইসিরুল

প্রকৃতপক্ষে, ঘুষ, পক্ষপাতিত্ব এবং বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতি শুধু রাজনীতিতেই নয়, সমাজের সর্বস্তরে ছড়িয়ে পড়েছে। – ডেভিড ম্যাককালো

যুবকদের কর্তব্য হ’ল দুর্নীতির চ্যালেঞ্জ করা। – কার্ট কোবাইন”

ঘুষ নিয়ে স্ট্যাটাস

সাধারণত একটি লোকের মধ্যে দুর্নীতিগ্রস্ত স্বাধীনতা বেশি দিন থাকতে পারে না। – এডমন্ড বার্ক”

ধর্ম নিয়ে রাজনীতি সবচেয়ে বড় দুর্নীতি। – আবুল ফজল”

ঘুষ নিয়ে কবিতা

অনেকেই কবিতা পড়তে পছন্দ করে। অনেকে চায় ভালো কবিতা পড়তে বা কবিতা সংগ্রহ করতে চায়। এর মাঝে অনেকেই চায় ঘুষ নিয়ে কবিতা পড়তে বা সংগ্রহ করতে। তাই আমরা এই পোস্টে ঘুষ নিয়ে কবিতা তুলে ধরেছি। আশা করি এই কবিতাটি আপনাদের কাছে ভালো লাগবে।

ঘুষ তাড়াও
– খলিলুর রহমান

ঘুষ মানে সামান্য কিছু দিয়ে কিছু পাওয়া নয়
ঘুষ মানে সৃষ্টি ও ধ্বংসের স্থান বিনিময়।
ঘুষ মানে ধ্বংস করা গণতন্ত্র, আইনের শাসন
ঘুষ মানে মানব অধিকারের পূর্ণ নির্বাসন।
ঘুষ মানে কলুষিত বাজার – উচ্চ দ্রব্য-মূল্য
সৎ মানুষের জীবন যাপন যেথা নরক-তুল্য।
ঘুষ আনে সংঘবদ্ধ অপরাধ, নিরাপত্তাহীনতা
ধবংস করে জীবনের মান, বাড়ায় শুধু দীনতা।

ঘুষ মানে বৈধের মৃত্যুদন্ড অবৈধের হাতে
ঘুষ মানে মাছ আর ডাল ছেড়ে বিষ ঢালা পাতে।
কম বেশী ঘুষ আছে পৃথিবীর বহু দেশে
গরিব দেশে তা সবচেয়ে বেশী সর্বনেশে।
গরিব দেশে তাই সত্যি যদি উন্নয়ন চাও
সবার আগে শক্তহাতে সর্বস্তরে ঘুষকে তাড়াও।

সুদ নিয়ে কবিতা

সুদ নেয়া খারাপ কাজ এই খারাপ কাজে যারা জড়িত, তারা অবশ্যই অন্যায় কাজ করে থাকে। সুদ নিয়ে কবিতা যারা খোঁজ করছেন তারা আজকের এই পোস্টে থাকা কবিতাটির সংগ্রহ করে নিন। আশা করি আজকের এই পোস্টে থাকা কবিতাটি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে।

সুদ
– মোহাম্মদ ইরফান

ঢের হয়েছে অ-মহাজন
দিসনা রে আর জ্বালা
এই মাসে সব সুদ দিব,নয়
ঘর-দোরে দিস তালা।কি করব বল!
দুঃখ-জ্বালায় ভাত পড়েনা পেটে,
অনাহারের ছোবল খেয়ে,রাত দিন যায় কেটে।
দুই বিঘা যা জমি ছিল
তাও নিয়েছিস কেঁড়ে
হালের বলদ মরছে,না হয়
সেটাও দিতাম ছেড়ে,

এই যা আছে মাথা গোঁজার,তাও নিয়ে নিস পরে,
গেলে আমি মরে।
খাজনা বাদে ধান যা ছিল
তা নিয়েছে চোরে
আমি এখন ভিক্ষ মাগি খায়
গ্রামটা সারা ঘোরে,
এক মহাশয় দুখ্ বুঝে কয়,”বেঁচলে কিডনি পরে”
ঘরের অভাব,দেনার টাকা,সব দিবে শোধ করে,
আর জ্বালাতন দিসনা রে ভাই

সুদ পাবি খুব তাড়া
নইলে পরে করিস এবার
ভিটে মাটি ছাড়া।
সেদিন রাতেই রমেশ বাবু কিডনি দিলো,হায়!
হাসপাতালে দুদিন ধরে থাকলো নিরালায়,
কিডনি ক্রেতা সেই মহাশয়
কই গেলো কে জানে
রমেশকে বের করল পরে
অর্ধচন্দ্র দানে,

কষ্ট করে আসলো ফিরে,ঢোকলো নিজের ঘরে
অমনি এসে পাওনাদারে,দেয় তারে বের করে,
ভিটে-মাটি,কিডনি হারা
রমেশ চলছে ছুটে
জল ছিলনা দুচোখে তার
হাসি ছিলো ঠোঁটে।
সেই হাসিটি বিষাদ ভরা
দেখছে শুধু প্রভু
মহাজনের পেটের ক্ষুদা
মিঠবে কি ফের তবু?

শেষ কথা

আমরা চেষ্টা করেছি আজকের এই পোস্টে সুদ ও ঘুষ সম্পর্কিত উক্তি তুলে ধরার। আশা করি আজকের এই পোস্ট থেকে আপনি খুব সহজেই উক্তি গুলো সংগ্রহ করতে পেরেছেন। যদি আজকের এই পোষ্ট আপনাদের কাছে ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনাদের বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button